মার্সেলের ‘কালো জলে কুচলা তলে’

‘কালো জলে কুচলা তলে ডুবল সনাতন/ আজ সারা না, কাল সারা না পাই যে দরসন/ লদীধারে চাষে বঁধু মিছাই কর আস ঝিরিহিরি বাঁকা লদি বইছে বার মাস...‍’ গানটি পুরোনো। বেশ কয়েক বছর আগে বুদ্ধদেব দাশগুপ্তর ‘উত্তরা’ চলচ্চিত্রে ব্যবহার করা হয় হয়েছিল। গেয়েছিলেন অভিজিৎ বসু। গানটি বীরভূম অঞ্চলের লোকসংগীত হিসেবে পরিচিত হলেও এটি মূলত সাঁওতালী গান। 
আগামীকাল ৯ আগস্ট আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস। এ উপলক্ষে ইগল মিউজিক প্রকাশ করতে যাচ্ছে মার্সেলের ‘কালো জলে কুচলা তলে’ শিরোনামে গানটি। গানটিতে কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি সংগীত পরিচালনা করেছেন মার্সেল নিজেই। 
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের শিক্ষার্থী শাহরিয়ার মার্সেল জানান, বিভাগীয় পাঠে ‘সাঁওতালি গান’ পর্বে বেশ কিছু সাঁওতাল গান সম্পর্কে ধারণা পেয়েছেন। তার মধ্যে এটি অন্যতম। তিনি বলেন, ‘সাঁওতালিদের গানের সংস্কৃতি খুবই সমৃদ্ধ। তবে অধিকাংশ সাঁওতালি গান পশ্চিম বাংলায় বিভিন্ন অঞ্চলে বহুল প্রচলিত। কিছু কিছু গান আঞ্চলিক গান হিসেবেও পরিচিতি পেয়েছে। বাংলা ভাষায় রচিত সীমিতসংখ্যক সাঁওতালি গানের মধ্যে “কালো জলে কুচলা তলে” গানটি অন্যতম। আমি সংগীতায়োজন ও গায়কিতে চেষ্টা করেছি তাদের ঢংটা ফুটিয়ে তুলতে। বাঙালি তথা বিশ্ব আদিবাসীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই আমার এ ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।’ 
৯ আগস্ট আদিবাসী দিবসে ঈগল মিউজিকের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ পাবে গানটি।

 
 
তথ্যসূত্রঃ প্রথম আলো
 
 

Comments.

Leave a comment.